43th BCS Circular
43th BCS Circular

43th BCS Circular

  • আবেদনপত্র  জমাদান শুরু : ৩০ ডিসেম্বর ২০২০ (সকাল ১০.০০)
  • আবেদনপত্র জমাদানের শেষ তারিখ : ৩১ জানুয়ারী ২০২১ (সন্ধ্যা ০৬.০০)
  • শূণ্য আসনঃ ১৮১৪টি
  • বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের তারিখ : ৩০ নভেম্বর ২০২০

বয়সসীমা

ক. মুক্তিযােদ্ধা/শহীদ মুক্তিযােদ্ধাদের পুত্র-কন্যা, প্রতিবন্ধী প্রার্থী এবং বিসিএস (স্বাস্থ্য) ক্যাডারের প্রার্থী ছাড়া অন্যান্য সকল ক্যাডারের প্রার্থীর জন্য বয়স ২১ হতে ৩০ বছর (জন্মতারিখ সর্বনিম্ন ০২/০১/১৯৯৯ সর্বোচ্চ ০২/১১/১৯৯০ পর্যন্ত)।

খ. মুক্তিযােদ্ধা/শহীদ মুক্তিযােদ্ধাদের পুত্র-কন্যা, প্রতিবন্ধী প্রার্থী এবং বিসিএস(স্বাস্থ্য) ক্যাডারের প্রার্থীর জন্য বয়স ২১ হতে ৩২ বছর (জন্মতারিখ সর্বনিম্ন ০২/০১/১৯৯৯ সর্বোচ্চ ০২/১১/১৯৮৮ পর্যন্ত)

ক্যাডরের নাম ও পদসংখ্যা

সম্প্রতি প্রকাশিত ৪৩ বিসিএস বিজ্ঞপ্তিতে মোট ক্যাডার সংখ্যা ১ হাজার ৮১৪। সবচেয়ে বেশি বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে শিক্ষাক্যাডারে । অন্যান্য পদগুলোর সংখ্যা নিচে ছক আকারে দেওয়া হল ।

ক্যাডরের নামপদসংখ্যা
শিক্ষা৮৪৩
প্রশাসন৩০০,
পুলিশ১০০
পররাষ্ট্র২৫
অডিট৩৫
ট্যাক্স১৯
কাস্টমস১৪
সমবায়২০
ডেন্টাল সার্জন৭৫
অন্যান্য ক্যাডার৩৮৩

43th BCS Circular

43th BCS Circular
43th BCS Circular
43th BCS Circular
43th BCS Circular
43th BCS Circular
43th BCS Circular
43th BCS Circular
43th BCS Circular
43th BCS Circular
43th BCS Circular
43th BCS Circular
43th BCS Circular
43th BCS Circular
43th BCS Circular
43th BCS Circular
43th BCS Circular
43th BCS Circular
43th BCS Circular

বিসিএস (ক্যাডার) পদে নিয়োগ পরীক্ষা পদ্ধতি

বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসে নিয়োগ পরীক্ষা গ্রহণের জন্য প্রণীত বিসিএস (বয়স, যোগ্যতা ও সরাসরি নিয়োগের জন্য পরীক্ষা) বিধিমালা-২০১৪ অনুযায়ী বিসিএস-এর নিম্নোক্ত ২৭টি ক্যাডারে উপযুক্ত প্রার্থী নিয়োগের উদ্দেশ্যে কমিশন কর্তৃক ৩ স্তরবিশিষ্ট পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়।

 বিসিএস-এর ২৭টি ক্যাডার

বিসিএস এর তিনস্তর বিশিষ্ট পরীক্ষা পদ্ধতি

বিসিএস (বয়স, যোগ্যতা ও সরাসরি নিয়োগের জন্য পরীক্ষা) বিধিমালা-২০১৪-এর বিধান অনুযায়ী বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসে উপযুক্ত প্রার্থী মনোনয়নের উদ্দেশ্যে সরকারী কর্ম কমিশন নিম্নোক্ত ৩ স্তর বিশিষ্ট নিয়োগ পরীক্ষা গ্রহণ করে থাকে

প্রথম স্তরঃ ২০০ নম্বরের MCQ Type Preliminary Test ।

দ্বিতীয় স্তরঃ প্রিলিমিনারি টেস্টে কৃতকার্য প্রার্থীদের জন্য ৯০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা।

তৃতীয় স্তরঃ লিখিত পরীক্ষায় কৃতকার্য প্রার্থীদের জন্য ২০০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষা।

প্রথম স্তরঃ ২০০ নম্বরের MCQ Type Preliminary Test

শূন্য পদের তুলনায় প্রার্থী সংখ্যা বিপুল হওয়ায় লিখিত পরীক্ষার মাধ্যমে উপযুক্ত প্রার্থী বাছাই-এর জন্য বিসিএস (বয়স, যোগ্যতা ও সরাসরি নিয়োগের জন্য পরীক্ষা) বিধিমালা-২০১৪-এর বিধি-৭ অনুযায়ী বাংলাদেশ সরকারী কর্ম কমিশন ২০০ নম্বরের MCQ Type প্রিলিমিনারি টেস্ট গ্রহণ করে থাকে। ৩৪তম বিসিএস পরীক্ষা পর্যন্ত ১০০ নম্বরে প্রিলিমিনারি টেস্ট গ্রহণ করা হতো। বিসিএস পরীক্ষা বিধিমালা-২০১৪-এর বিধানমতে ৩৫তম বিসিএস পরীক্ষা হতে ২০০ নম্বরের ২ ঘণ্টা সময়ে ১০টি বিষয়ের উপর MCQ Type প্রিলিমিনারি টেস্ট গ্রহণের ব্যবস্থা প্রবর্তন করা হয়েছে।

2 COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here